সুব্রত চৌধুরীর অভিযোগ স্বীকার করলেন নূর

সংখ্যলঘুদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় অনেক জায়গায় আওয়ামী লীগের লোকজনও জড়ি- বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা সুব্রত চৌধুরীর এমন অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেছেন আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর।

নূর বলেন, “আওয়ামী লীগ একটি বিশাল কমিউনিটি। সুতরাং এখানে কিছু খারাপ লোকও ঢোকার সুযোগ পায়। তারা নিজেদের সুবিধার জন্য এগুলো করে থাকে। তা ছাড়া আমাদের দেশে ভূমি দখলকারী একটি চক্র আছে, যারা জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে মিলে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণ করে তাদের ভূমি দখল করতে চায়।”

শনিবার বিকেলে রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপে প্যানেল সদস্য হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন। সংলাপের এ পর্বে প্যানেল সদস্য হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিভ রহমান পার্থ, সাবেক রাষ্ট্রদূত আশফাকুর রহমান এবং বেসরকারি সংগঠন ‘নিজেরা করি’র সমন্বয়ক খুশী কবির।

সংখ্যলঘুদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় বিচার হচ্ছে না কেন, এমন প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, “আামাদের দেশে এমনিতেই বিচারব্যবস্থা জটিল। বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের জন্য তার দলকে দুবার ক্ষমতায় আসতে হলো। অন্য কেউ কিন্তু এটা করেনি। আবার আমরা ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেছি। সংখ্যলঘুদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় বিচার ও হয়তো বিলম্বিত হচ্ছে। কিন্তু আমি মনে করি এদের বিচার হবে।”

আন্দালিভ রহমান পার্থ বলেন, “রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করেন পাবলিক সিমপ্যাথি নেওয়ার জন্য। আমরা দেখেছি, আহসান উল্লাহ মাস্টার, কিবরিয়া সাহেবের মতো মানুষকে হত্যা করা হয়েছে, এটা গুরুত্বপূর্ণ এবং অনেক কথা বলা হয়েছে, কিন্তু বিচার যেন গুরুত্বপূর্ণ নয়। তেমনি এখন ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের পর সবার দৃষ্টি অন্যদিকে নেয়ার জন্য এগুলো (সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা) নিয়ে অনেক কথা বলা হচ্ছে।”

পার্থ বলেন, “আমার মনে করি, প্রধানমন্ত্রী বা বিরোধীদলীয় নেত্রী কেউই বলবে না তোমরা এগুলো করো। কিন্তু খারাপ মানুষ কোনো দলের নয়। এরা সব দলেই থাকে। খারাপ মানুষরা একে-অন্যের মাসতুতো ভাই।”

পার্থ বলেন, “আমি মনে করি, কোনো নির্দিষ্ট সরকার নয়, সব সরকারই যদি এদের (সংখ্যালঘুদের ওপর হামলাকারী) বিচারের আওতায় আনে এবং দোষীদের বিচার করে, তাহলে এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবে না।”

আশফাকুর রহমান বলেন, “এগুলো ক্রিমিনাল আক্টিভিটিস। সরকারকে সেভাবেই পদক্ষেপ নিতে হবে।”

খুশী কবির বলেন, “শুধু আওয়ামী লীগ-বিএনপি নয়, আমি কোনো দলের কথা বলছি না, যারা ক্ষমতায় থাকে তারা কেউই এ বিষয়টা নিয় সিরিয়াস নয়। এখন যেমন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে। তারাও বিষয়টা নিয়ে খুব একটা সিরিয়াস নয়।”

বিবিসি বাংলা এবং বিবিসি মিডিয়া অ্যাকশন যৌথভাবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন আকবর হোসেন এবং প্রযোজনা করেন ওয়ালিউর রহমান মিরাজ।

উৎস: নতুন বার্তা

Advertisements
This entry was posted in in Bangla and tagged , , , . Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s