হিন্দু জমি দখল: আ.লীগ নেতাকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের নির্দেশ

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার রসুলপুর গ্রামে হিন্দু পরিবারের জমি জোর করে দখলের অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাসহ জড়িতদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে জমি দখলের ঘটনা তদন্ত করে পুলিশ মহাপরিদর্শককে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি এ বি এম আলতাফ হোসেইনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।

এছাড়া লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপারকে অপরাধী গ্রেপ্তার নিশ্চিত করে আগামী ৭ দিনের মধ্যে অগ্রগতি প্রতিবেদন আদালতে জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লালমনিরহাটে ওই এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের সম্পত্তি রক্ষায় ব্যবস্থা গ্রহণে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছেন আদালত।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরির্দশক, উপ মহাপরির্দশক, জেলা পুলিশ সুপার ও পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), অভিযুক্ত স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা রবিউল ইসলাম ও নজরুল ইসলামকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রিটের পক্ষে শুনানি করেন- এডভোকেট মনজিল মোরসেদ। তিনি আদালতে শুনানিতে বলেন, বেআইনিভাবে হিন্দু পরিবারের সম্পত্তি দখল করছে প্রভাবশালীরা। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ দেওয়া হচ্ছে না। সুতরাং এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

গত ২ মার্চ ইংরেজী দৈনিকে ‘স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতারা হিন্দু পরিবারের জমি দখল করেছে’ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ সংবাদের ভিত্তিতে ‘হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশে’র পক্ষে গত ৪ মার্চ ওই রিট করেন এডভোকেট আসাদুজ্জামান সিদ্দিকী।

source

Advertisements
This entry was posted in in Bangla, News and tagged , . Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s